মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ১২ August ২০২০

বৈদ্যুতিক, সময় এবং ফ্রিকোয়েন্সি পরিমাপ ল্যাবরেটরি

টেকনিক্যাল বিষয়ে যোগাযোগঃ

 

  • মোঃ মাসুদ-আল-মামুন, পরিদর্শক ।

ল্যাবে দায়িত্বঃ ডেপুটি হেড অব ইলেক্ট্রিক্যাল টাইম এন্ড ফ্রিকুয়েন্সি, এনএমএল-বিএসটিআই

সেল: +৮৮০১৯১১৬৫৪১০৭

ই-মেইল: masudbsti@yahoo.com

 

  • সৈয়দা কিমিয়া আলম দিবা, পরীক্ষক ।

ল্যাবে দায়িত্বঃ মেট্রোলজিস্ট অব ইলেক্ট্রিক্যাল টাইম এন্ড ফ্রিকুয়েন্সি, এনএমএল-বিএসটিআই

সেল: +৮৮০১৬৭৫৪১১৬৩৬

ই-মেইল: kimia15nml.bsti@gmail.com

এস্‌আই পদ্ধতিতে সময়ের ভিত্তি একক হলো সেকেন্ড (s)। 

 

উৎপত্তিগত দিক থেকে পৃথিবীর ঘূর্ণনের উপর ভিত্তি করে সময় নির্ধারণ করা হতো অর্থাৎ পৃথিবী যে সময়ে নিজ অক্ষের উপর সম্পূর্ণ একবার আবর্তিত হয় তার ৮৬৪০০ ভাগের এক ভাগকে এক সেকেন্ড ধরা হতো। কিন্তু ঊনবিংশ ও বিংশ শতাব্দীর বিজ্ঞানীরা আবিষ্কার করলো যে পৃথিবীর নিজ অক্ষের উপর ঘূর্ণনের গতি স্থির নয়। সেজন্য, ১৯৬৭ সালের পর থেকে সেকেন্ডের নিম্নোক্ত সংজ্ঞাটি ব্যবহার করা  থাকে:

"পরম শূন্য তাপমাত্রায় একটি অনুত্তেজিত সিজিয়াম-১৩৩ পরমাণুর ৯,১৯২,৬৩১,৭৭০ টি স্পন্দন সম্পন্ন করতে যে সময় লাগে তাকে ১ সেকেন্ড বলে।"